নান্যাচরের রামহরি পাড়ায় ইউপিডিএফ কর্মীদের ওপর সেনা মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের গুলিবর্ষণ

0
58

নান্যাচর প্রতিনিধি, সিএইচটি নিউজ
মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩


রাঙামাটির নান্যাচর উপজেলার বুড়িঘাট ইউনিয়নের রামহরি পাড়া এলাকায় ইউপিডিএফ কর্মীদের ওপর সেনা মদদপুষ্ট নব্যমুখোশ ও সংস্কারবাদী জেএসএস সন্ত্রাসীরা অতর্কিতে গুলিবর্ষণ করেছে। তবে এতে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এ সময় সন্ত্রাসীরা গ্রামের একটি মুদি দোকান ভাঙচুর ও লূটপাট চালয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ মঙ্গলবার (২৮ মার্চ ২০২৩) বিকাল ৪.৪৫ টার সময় রামহড়ি পাড়ার বুড়িঘাট-ঘিলাছড়ি সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ বিকাল ৪.৪৫ টার দিকে লিটন চাকমার নেতৃত্বে সরকারের লেলিয়ে দেয়া নব্যমুখোশ ও সংস্কারবাদী গ্রুপের ১১ জনের একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল নান্যাচরের গুলশাছড়ি থেকে ২টি সিএনজি যোগে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি মূল সড়ক ব্যবহার করে সমাজ কল্যান সড়ক দিয়ে রামহরি পাড়ায় হানা দেয়।

এসময় সন্ত্রাসীরা সাংগঠনিক কাজে রামহরি পাড়ায় অবস্থানরত ইউপিডিএফ কর্মীদের লক্ষ্য করে উপর্যুপুরি বেশ কয়েক রাউন্ড ব্রাশফায়ার করে। তবে ইউপিডিএফ কর্মীরা সেখান থেকে সরে যেতে সক্ষম হন।

সন্ত্রাসীরা রামহরি পাড়ার একটি মুদি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে বলে গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেছেন। ভাঙচুরের ফলে দোকানের ৩৫/৪০ হাজার টাকার মালামাল ও দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তারা জানান।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিকের নাম আশু চাকমা (৩২), পিতা- নন্যো চাকমা, গ্রাম- রামহরি পাড়া।

হামলার পর সন্ত্রাসীরা প্রায় ১ ঘন্টার মত রামহরি পাড়ায় অবস্থান করে। এসময় রামহরি পাড়া এলাকায় লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে বুড়িঘাট আর্মি ক্যাম্প থেকে একদল সেনা সদস্য ছোট মাওরুম উচ্চ বিদ্যালয়ে আসার পর সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্য একটি পিক-আপ গাড়ীযোগে সেনা সদস্যদের সামনে দিয়ে পুলি পাড়া সড়ক ব্যবহার করে নানাক্রুমের দিকে চলে যায়।

সরকারের জুম্মো দিয়ে জুম্মো ধ্বংসের ভয়াবহ নীতি বাস্তবায়নে লিপ্ত অস্ত্রধারী ভাড়াটে দুর্বৃত্তদের ব্যাপারে এলাকার জনগণ অত্যন্ত সজাগ এবং ভীষণ ক্ষুব্ধ।

গ্রামবাসীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দিনে দুপুরে প্রকাশ্য অস্ত্রসহ সেনাবাহিনীর সামনে দিয়ে চলাফেরা করা আমরা এই প্রথম দেখলাম। আজ আমাদের কাছে পরিস্কার হয়েছে সেনাবাহিনীই পাহাড়ে সন্ত্রাসী চাষ করে জাত নির্মূলের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

কুয়াকাটায় আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ ও সন্তু লারমার ‘পার্বত্য চুক্তির’ ৭ম বৈঠকের ‘এটাই আপেক্ষিক অগ্রগতি’ বলে অভিজ্ঞমহল ঠাহর করছেন।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।


সিএইচটি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.