বাঘাইছড়িতে রূপন, সমর, সুকেশ, মনতোষ’র আত্মবলিদানের ২৫তম বার্ষিকীতে স্মরণসভা

স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও ধর্মীয় দানানুষ্ঠান আয়োজন

0
179

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি।। রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ, ধর্মীয় দানানুষ্ঠান ও স্মরণসভার মধ্য দিয়ে ছাত্র নেতা রূপন, সমর, সুকেশ ও মনতোষ চাকমা’র আত্মবলিদানের ২৫তম বার্ষিকী পালিত হয়েছে।

১৯৯৬ সালের ২৭ জুন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী কল্পনা চাকমাকে অপহরণের প্রতিবাদে বাঘাইছড়িতে সড়ক ও নৌপথ অবরোধ পালনকালে উক্ত চার ছাত্র নেতা সেটলার বাঙালি ও ভিডিপি কর্তৃক হত্যা ও গুমের শিকার হয়েছিলেন।

দিনটি উপলক্ষে আজ ২৭ জুন ২০২১, রবিবার ভোর ৬টার দিকে রূপকারিতে রূপন, সমর, সুকেশ ও মনতোষ চাকমার স্মরণে স্থাপিত স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ও তাদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করেন শহীদ পরিবারবর্গ ও এলাকাবাসী। পরে তাদের উদ্দেশ্যে পরিবারের পক্ষ থেকে ধর্মীয় দানানুষ্ঠান (সংঘদান, ও অষ্টপরিষ্কার) শহীদ রূপন চাকমা’র বাড়িতে সম্পন্ন করা হয়। এতে এলাকার ছাত্র, যুবক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে, ‌‘মা-বোনের সুরক্ষায় ছাত্র-যুব সমাজ এগিয়ে এসো’ এই শ্লোগানে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) এক স্মরণসভার আয়োজন করে। এতে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার তথ্য প্রচার সম্পাদক সুজন চাকমার সঞ্চালনায় ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ পিসিপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুমন চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি রত্মজ্যোতি চাকমা ও পিসিপি’র সাবেক নেতা প্রান্তিক চাকমা।

স্মরণসভা শুরুতে শহীদদের স্মরণে ১ মিনিটি নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, ’৯৬ সালের ১২ জুন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী কল্পনা চাকমাকে অপহরণ করে ক্ষান্ত হয়নি লে. ফেরদৌস গংরা। তারা জুম্ম জনগণের মধ্যে ভীতি সঞ্চার ও প্রতিবাদ-আন্দোলন দমনে মরিয়া হয়ে উঠে। এরই অংশ হিসেবে ২৭ জুন’৯৬ কল্পনা চাকমাকে অপহরণের প্রতিবাদে তিন সংগঠন (পিসিপি, পিজিপি ও এইচডব্লিউএফ)-এর ডাকা সড়ক ও নৌপথ অবরোধ পালনকালে সেটলার বাঙালি ও সশস্ত্র ভিডিপি সদস্যদের লেলিয়ে দিয়ে ছাত্র নেতা রূপন, সমর, সুকেশ ও মনতোষ চাকমাকেও হত্যা-গুম করা হয়েছিল।

বক্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সরকার ২৫ বছরেও কল্পনা চাকমার সন্ধান তো দূরের কথা, চিহ্নিত অপহরণকারী লে. ফেরদৌস ও তার সহযোগীদের এখনো বিচারের মুখোমুখি করেনি। একইভাবে রূপন, সমর, সুকেশ ও মনতোষ চাকমাকে হত্যা ও গুমের সাথে যারা জড়িত তারাও রয়েছে ধরাছোঁয়ার বাইরে।

বক্তারা দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, সরকার-প্রশাসন লে. ফেরদৌস গংদের দিয়ে কল্পনা চাকমাকে অপহরণ ও সেটলার-পুলিশ-ভিডিপি লেলিয়ে দিয়ে রূপন, সমর, সুকেশ, মনতোষের মতো প্রতিবাদী তরুণদের হত্যা-গুম করতে পারলেও পার্বত্য চট্টগ্রামের ছাত্র ও ‍যুব সমাজকে দমিয়ে রাখতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবে না। যতদিন পর্যন্ত জুম্ম জনগণের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা হবে না ততদিন পার্বত্য চট্টগ্রামে ছাত্র-যুব সমাজ লড়াই-সংগ্রাম চালিয়ে যাবে।

বক্তারা জুম্ম জাতির অস্তিত্ব রক্ষা ও মা-বোনের সুরক্ষায় লড়াইয়ে সামিল হওয়ার জন্য ছাত্র-যুব সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

স্মরণসভা থেকে বক্তারা আর কালক্ষেপণ না করে কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারী লে. ফেরদৌস গংদের সহ রূপন, সমর, সুকেশ, ও মনতোষ চাকমাকে হত্যা ও গুমের সাথে জড়িত সেটলার ও ভিডিপি সদস্যদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানান।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.