মাটিরাঙ্গায় মুখোশদের আস্তানা থেকে অস্ত্র-গুলিসহ এক সেটলারকে আটক করেছে র‌্যাব

0
638

মাটিরাঙ্গা প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা সদরের মাছ বাজার এলাকায় মুখোশদের আস্তানা থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ মো. রুহুল আমিন রুবেল (৩১) নামে এক সেটলারকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

গতকাল শনিবার (২৬ জুন) সন্ধ্যায় মাটিরাঙ্গা মাছ বাজারের আব্দুর রশিদের চারতলা ভবন থেকে তাকে আটক করা হয় বলে জানা গেছে।

আটক মো. রুহুল আমিন রুবেল খাগড়াছড়ির ইসলামপুর এলাকার বাসিন্দা নুরুল আমিন রুবেল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সুলেন চাকমার নেতৃত্বে মুখোশ বাহিনীর একটি সশস্ত্র দল স্থানীয় সামরিক-বেসামরিক প্রশাসনের ছত্রছায়ায় দীর্ঘদিন ধরে মাটিরাঙ্গা মাছ বাজারের আব্দুর রশিদের চারতলা ভবনে আস্তানা বানিয়ে মাদক ব্যবসা, মাদক সেবন, অপহরণ, চাঁদাবাজিসহ নানা অপকর্ম করে আসছিলো। এ পর্যন্ত তাদের হাতে এলাকার অনেক সাধারণ গ্রামবাসী নিগ্রহের শিকার হয়েছেন। অপহরণের শিকার হয়েছেন স্কুল ছাত্রসহ অনেকজন। অনেকের কাছ থেকে তারা জোরপূর্বক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসন কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। উপরন্তু নিরাপত্তা দিয়েই মুখোশদেরকে সেখানে রাখা হয়েছে বলে স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ রয়েছে।

কিন্তু গতকাল সন্ধ্যা ৬টার সময় হঠাৎ করে র‌্যাব-৭ এর একটি দল ঝিমিত নামে মুখোশ বাহিনীর একজনকে সাথে নিয়ে আব্দুর রশিদের ঐ ভবনে অভিযান চালায়। এ সময় মুখোশ বাহিনীর সুলেন, বিপ্লব মারমাসহ কয়েকজন সেখানে তাদের আস্তানায় অবস্থান করছিলো বলে খবর পাওয়া যায়। অভিযানকালে স্থানীয় সাংবাদিকসহ আশে-পাশের লোকজনকে সেখানে যেতে দেওয়া হয়নি। এদিকে, র‌্যাবের অভিযানের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মাটিরাঙ্গা জোন  থেকে একদল সেনা সদস্যও সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয়। তবে তাদের সেখানে যাওয়ার উদ্দেশ্য হচ্ছে মুখোশ বাহিনী সদস্যদের রক্ষা করা। ফলে র‌্যাবের সদস্যরা ঘন্টার অধিক সেখানে অভিযান চালালেও রহস্যজনক কারণে অপকর্মের মূল হোতা মুখোশ বাহিনীর সদস্যদের আটক করা হয়নি।

তবে, এ সময় র‌্যাবের সদস্যরা সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে সেটলার রুহুল আমিন রুবেলকে আটক করে তার কাছ থেকে একটি দেশীয় এলজি ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে বলে জানা গেছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ রবিবার দুপুরে আটক রুহুল আমিন রুবেলকে অস্ত্র ও গুলিসহ মাটিরাঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয় বলে থানার ওসি মোহাম্মদ আলী জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় র‌্যাব-৭ এর ডিএডি মো. শরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে মাটিরাঙ্গা থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন এবং আসামি রুহুল আমিন রুবেলকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

এদিকে, আজ দিনভর মুখোশ বাহিনীর সদস্যদের তাদের আস্তানায় দেখা যায়নি বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.