পিসিপি’র ৩২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মানিকছড়িতে আলোচনা সভা

0
63

মানিকছড়ি প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)-এর গৌরবময় ৩২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ২০ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার পিসিপি’র মানিকছড়ি ও রামগড় থানা শাখার যৌথ উদ্যোগে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

“৮৯’এর গণজাগরণের চেতনার মশাল জ্বালিয়ে পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের আন্দোলনকে বেগবান করুন” এই শ্লোগানে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভার শুরুতে শহীদ রমেল, তপন, এল্টনসহ সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় মানিকছড়ি থানা শাখার সদস্য অংসালা মার্মার সঞ্চালনায় ও সভাপতি অংহ্লাসিং মার্মার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর মানিকছড়ি ইউনিটের সংগঠক ক্যহ্লাচিং মারমা, পিসিপি’র রামগড় থানা শাখার সহ-সভাপতি নয়ন চাকমা,  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সুদেব চাকমা ও ঢাকা পলিটেকনিক কলেজের শিক্ষার্থী পাইমং মারমা প্রমুখ।

ইউপিডিএফ সংগঠক ক্যহ্লাসিং মারমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিপ্লবের উর্বর ভূমি। পাহাড় ও সমতলের নিপীড়িত মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্যে দেশের রাজনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন আনতে হলে পার্বত্য চট্টগ্রামবাসীদের বাদ দিয়ে কখনও সম্ভব নয়।

তিনি আরও বলেন, পাহাড়ের অধিকার বঞ্চিত মানুষের মুক্তি পেতে হলে শাসকগোষ্ঠীর চক্রান্তের বিরুদ্ধে পার্টি এবং জনগণের মিলিত শক্তির প্রয়োজন। পার্টির সঠিক নেতৃত্ব আর জনতার সর্বাত্মক অংশগ্রহণই পারে বিপ্লবের পথ উন্মোচন করতে।

পিসিপি’র রামগড় থানা শাখার সহ-সভাপতি নয়ন চাকমা বলেন, ৮৯’র লংগদু গণহত্যার প্রতিবাদের অগ্নিমশাল থেকে জন্ম নেয়া পিসিপি আজও সেই চেতনা বিকিয়ে দেয়নি। পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণের রাজনৈতিক মুক্তির রূপরেখা পূর্ণস্বায়ত্তশাসন লড়াইয়ে আজও আপোষহীন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সুদেব চাকমা বলেন, পাহাড় ও সমতলে রাজনৈতিক অরাজকতায় মানুষের বাকস্বাধীনতা গলাটিপে হত্যা করেছে শাসকগোষ্ঠী। পাহাড়ের নিপীড়িত মানুষের জাতীয় মুক্তি সংগ্রামে দেশের প্রগতিশীল সংগঠনসমূহের সাথে শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার বিকল্প নেই।

ঢাকা পলিটেকনিক কলেজের শিক্ষার্থী পাইমং মার্মা পিসিপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় সংহতি জানিয়ে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি বেদখল, অপারেশন উত্তরণ, বিচারহীনতার সংস্কৃতি ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে পিসিপির ভূমিকা অভাবনীয়। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের রাজনৈতিক মুক্তির জন্যে পাহাড়ের মুক্তিকামী দলগুলোর প্রতি ঐক্যের জোর দাবি জানান।

সভার সভাপতি অংহ্লাসিং মার্মা বলেন, শাসকগোষ্ঠী সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনির মাধ্যমে বাঙালি ভিন্ন পাহাড় ও সমতলের অপরাপর ৪৫টিরও অধিক জাতিসত্তাকে অস্বীকার করেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের অধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলা শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে রাজপথের আন্দোলন-সংগ্রামে প্রস্তুত থাকতে তিনি ছাত্র ও যুব সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.